বিনোদন ডেস্ক : সাভারের মেয়ে প্রীতি পড়া শুনার পাশা পাশি অভিনয়ে জগতে ছুটছেন খুব ধীর গতিতে। তিনি বেছে বেছেই অনেক কাজ করছেন। তাছাড়া ভাল গল্প পেলেই নিজেকে তুলে ধরার ইচ্ছে পোষণ করেন রূপালী পর্দায় ।

তার পুরো নাম ‘শারমিন প্রীতি’। এই প্রীতি মিরপুর কলেজে বাংলায় ২য় বর্ষে অনার্স পড়ুয়া একজন গুনি ছাত্রী। দেখতে বলা চলে খুবই সুন্দরী, এক কথায় অপরুপা এক প্রতিভাবান নারী। অভিনয় জগতে কিভাবে তিনি আসলেন জানতে চাইলে হাস্যজ্জ্বল ভাবেই জানালেন, ছোট বেলা থেকেই অভিনয়ের স্বপ্নে বিভোর ছিলেন। আর সেই স্বপ্নকে নিত্য সঙ্গী করেই মিডিয়া জগতে পা বাড়িয়ে সন্ধান পেলেন ‘বিজয়’ টেলিভিশনে কাজ করার সুযোগ।

চ্যানেলে অনেকের ভালোবাসা ও সম্মান নিয়ে তিনি সর্ব প্রথমেই একটি জনপ্রিয় “সিনেমা বিষয়ক” অনুষ্টানের উপস্থাপিকায় অনেক দক্ষতা বা সুনাম কুড়িয়েছেন। সেই কর্মের আলোকেই আজকে ধীরে ধীরে অভিনয় জগতে তার সুযোগ এবং ক্যামেরার সামনে দক্ষতার বহিঃ প্রকাশ ঘটে। ‘শারমিন প্রীতি’ ইতি মধ্যেই অনেক ভালো কাজও করে দেখিছেন। বেশ কিছু নাটকে ও বিজ্ঞাপন কাজে অনেকাংশেই যেন সফলতা পরিলক্ষিত হয়।

এখন কি কাজ নিয়ে ব্যস্ত আছেন? এমন এ প্রশ্নের উত্তরে তিনি অকপটে বলেছেন, আজকের মিডিয়া জগতের প্রতিভাবান এবং সুদক্ষ চিত্র পরিচালক ইমদাদুল হক মিজানের একটি শৈল্পিক ধারার বিনোদন পূর্ণ নির্মাণ শৈলী ‘ভালবাসায় লাল সবুজ’ নামক এক টেলি ছবির প্রধান নায়িকা ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। এই টেলি ছবিতে তার বিপরীতে আজকের চিত্র নায়ক সাঈফ খানও রয়েছে। তার সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন এবং অনেক ভালো অভিনয় করতে পেরেছেন এতে “শারমিন প্রীতি” রীতি মতো মুগ্ধ হয়েছেন। নজরুল ইসলাম তোফাকে তিনি আরও জানালেন, সম্প্রতি শেষ করেছেন দু’টি খন্ড নাটকের শুটিং।

তার উল্ল্যেখযোগ্য ‘নোলক’ এবং ‘টিকেট কাউন্টার’ নামক নাটকে অনেক চমৎকার অভিনয় করেছেন। আরো দুটি খন্ড নাটকের শুটিং তিনি সম্প্রতিই শেষ করেছেন। সামনে আরও কি নতুন কাজ করেছেন? জবাবে প্রীতি বলেছেন, আরও দু’তিনটি চমৎকার নতুন গল্পের কাজে কথা চলছে, চুড়ান্ত কথা হলেই তিনি তা পরিষ্কার ভাবে জানাবেন। তিনি ভবিষ্যতে কি ধারার কাজ করবেন, এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বললেন, ভালো গল্প, নায়িকা চরিত্র আরও থাকতে হবে দৃশ্যের নাটকীয় ক্লাইমেক্স, এমন কিছু কাজের অফার আসলেই সে সব কাজ তিনি করবেন বলে জানালেন।

Comments

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here